প্রিপেইড মিটারের ইমার্জেন্সি ব্যালেন্স কোড | Prepaid Meter Emergency Balance Code 2024

প্রিপেইড মিটার | Prepaid Meter

প্রিপেইড বৈদ্যুতিক মিটার হলো এক ধরনের বিদ্যুৎ পরিমাপক যন্ত্র/ডিভাইস যেখানে বিদ্যুৎ ব্যবহারের পূর্বে টাকা রিচার্জ করতে হয়। এরপরই বিদ্যুৎ ব্যবহার করা যায়। পূর্বে অর্থ প্রদান করে বিদ্যুৎ ব্যবহার করা হয় বলেই এধরনের মিটারকে প্রিপেইড বৈদ্যুতিক মিটার বা প্রিপেইড মিটার বলা হয়।

সূচীপত্র

আমরা সবাই কমবেশি বিদ্যুৎ ব্যবহার করে থাকি সেই সাথে বিদ্যুৎ ব্যবহারের পারমাপক যন্ত্র/ডিভাইস মানে এনার্জি  মিটার সম্পর্কে ধারণা রয়েছে। ২০০৭ সালের পূর্বে এনালগ মিটার ব্যবহার হতো পরে আসলো ডিজিটাল মিটার এ গুলো বেসিক মিটার ছিলো শুধু রিডিং দেখা যেত সে অনুযায়ী বিল হতো। বর্তমানে ব্যবহার হচ্ছে প্রিপেমেন্ট মিটার এ ধরনের মিটারের ব্যবহার দিনদিন বেড়ে চলেছে। প্রিপেইড মিটারের মাধ্যমে বিদ্যুৎ ব্যবহার করতে হলে ব্যবহারের পূর্বে টাকা রির্চাজ করে তারপর বিদ্যুৎ ব্যবহার করতে হয়।

প্রিপেইড মিটারে ইমার্জেন্সি ব্যালেন্স কোড
প্রিপেইড মিটারে ইমার্জেন্সি ব্যালেন্স কোড

আজকের নিবন্ধে আমরা প্রিপেইড মিটারে ইমার্জেন্সি ব্যালেন্স নেওয়ার পদ্ধতি সম্পর্কে বিস্তারিত জানার চেষ্টা করবো।

প্রিপেইড মিটারে ইমার্জেন্সি ব্যালেন্স কোড সম্পর্কে আমরা গুগলে খুজে থাকি যেমন প্রিপেইড মিটারে ইমারজেন্সি ব্যালেন্স আনার নিয়ম, Prepaid Meter Emergency Balance Code 2024, প্রিপেইড মিটারে ইমার্জেন্সি ব্যালেন্স নেয় কিভাবে, প্রিপেইড মিটার ইমারজেন্সি ব্যালেন্স চেক করে, ইমার্জেন্সি ব্যালেন্স চালু করে কিভাবে,মিটারে লোন কিভাবে নেয়,প্রিপেইড মিটার ইমারজেন্সি ব্যালেন্স কোড,ইমার্জেন্সি ব্যালেন্স বিদ্যুৎ কোড,মিটারের লোন নেওয়ার নিয়ম,প্রিপেইড মিটারে লোন নেওয়ার কোড উক্ত বিষয় গুলোর সমাধান আজকের নিবন্ধে আপনারা পেয়ে যাবেন।

প্রিপেইড মিটারের ইমার্জেন্সি ব্যালেন্স কোড | Prepaid Meter Emergency Balance Code 2024

প্রিপেইড মিটারের মাধ্যমে বিদ্যুৎ ব্যবহার করার সময় মিটারের ব্যালেন্স শেষ হয়ে গেলে  অর্থাৎ ইমার্জেন্সি অবস্থায় লোন নেওয়ার যায় উক্ত ব্যালেন্সকে ইমার্জেন্সি ব্যালেন্স বলে। বিদ্যুৎ বিতরণ প্রতিষ্ঠান সমূহ ইমার্জেন্সি অবস্থায় মিটারে টাকা শেষ হয়ে গেলে ইমার্জেন্সি ব্যালেন্স নেওয়ার ব্যবস্থা রেখেছে। আমরা অনেকেই জানি না যে প্রিপেইড মিটারে ইমার্জেন্সি ব্যালেন্স নেয় কিভাবে। ইমার্জেন্সি ব্যালেন্স নেওয়ার জন্য বিশেষ কোড রয়েছে এই মিটার ব্যান্ড অনুসারে কোড ভিন্ন ভিন্ন হয়ে থাকে। নিচের ছকে কিছু প্রচলিত মিটারের  ইমার্জেন্সি ব্যালেন্স কোড দেওয়া হয়েছেঃ

মিটার প্রস্তুতকারকইমার্জেন্সি ব্যালেন্স কোড
ইনহে৮৯৮৯৮৬৮৬
হেক্সিং৮১১
লিংইয়াং৮০৯
স্টার৯৯৯৯৯
অনান্য সকল মিটার৮১১

ইমার্জেন্সি ব্যালেন্স নিতে আপনার মিটারে কোড প্রবেশ করিয়ে এন্টার/ওকে বাটন চাপলে ইমার্জেন্সি ব্যালেন্স চলে আসবে। বিদ্যুৎ বিতরণকারী প্রতিষ্ঠান ইমার্জেন্সি ব্যালেন্স লিমিট মিটারে সেট করে দেয়। সাধারনত ইমার্জেন্সি ব্যালেন্স সিঙ্গেল ফেজ মিটারে এ ১০০ টাকা এবং থ্রি ফেজ মিটারে এ ২৫০ টাকা হয়।

ইনহে মিটারে (INHEMETER) ইমার্জেন্সি ব্যালেন্স কোড

ইনহে মিটার বাংলাদেশে বহুল ব্যবহৃত একটি মিটার ব্যান্ড। ইনহে মিটার (INHEMETER) বাংলাদেশে আইডিয়াল ইলেকট্রিক্যাল এন্টারপ্রাইজ লিঃ নিয়ে আসে। ইনহে মিটার (INHEMETER) এর একফেজ মিটারের নাম্বার ০১০২১ দিয়ে শুরু হয় আর থ্রিফেজ মিটারের নাম্বার ০১০২৩ দিয়ে শুরু হয়।

ইনহে মিটারে (INHEMETER) ইমার্জেন্সি ব্যালেন্স কোড কত?

ইনহে মিটারে (INHEMETER) ইমার্জেন্সি ব্যালেন্স কোড হচ্ছে সিঙ্গেল ফেজ ও থ্রিফেজ মিটারের জন্য ৮৯৮৯৮৬৮৬। কোডটি মিটারে ডায়াল করে এন্টার বাটন চাপলে ইমার্জেন্সি ব্যালেন্স চলে আসবে।

হেক্সিং মিটারে (HEXING METER) ইমার্জেন্সি ব্যালেন্স কোড

হেক্সিং মিটারে (HEXING METER) ইমার্জেন্সি ব্যালেন্স কোড হচ্ছে সিঙ্গেল ফেজ ও থ্রিফেজ মিটারের জন্য ৮১১। কোডটি মিটারে ডায়াল করে এন্টার বাটন চাপলে ইমার্জেন্সি ব্যালেন্স চলে আসবে।

প্রিপেইড মিটারে ব্যালেন্স চেক করার কোড

প্রিপেইড মিটারের মাধ্যমে বিদ্যুৎ ব্যবহার করার প্রথম শর্ত রিচার্জ করে টোকেন মিটারে প্রবেশ করানো তখন শুধু মাত্র আপনি বিদ্যুৎ ব্যবহার করতে পারেবেন। প্রিপেইড মিটারে টাকা/ব্যালেন্স দেখার জন্য নির্দিষ্ট কিছু কোড আছে যার মাধ্যমে টাকা/ব্যালেন্স দেখেতে পারবেন। ব্যালেন্স চেক করার জন্য যে বিশেষ কোড রয়েছে তা মিটার ব্যান্ড অনুসারে কোড ভিন্ন ভিন্ন হয়ে থাকে। প্রচলিত মিটারের ব্যালেন্স চেক করার কোড এখান থেকে দেখে নিতে পারেন

প্রিপেইড মিটার সম্পর্কিত প্রশ্ন ও উত্তর

প্রিপেইড মিটারে ইমার্জেন্সি ব্যালেন্স কোড কত?

প্রিপেইড মিটারে ইমার্জেন্সি ব্যালেন্স কোড ৮১১।

প্রিপেইড মিটারে ইমার্জেন্সি ব্যালেন্স কত টাকা দেয়?

সাধারনত ইমার্জেন্সি ব্যালেন্স সিঙ্গেল ফেজ মিটারে এ ১০০ টাকা এবং থ্রি ফেজ মিটারে এ ২৫০ টাকা হয়। তবে বিদ্যুৎ বিতরন প্রতিষ্ঠান ইমার্জেন্সি ব্যালেন্স এমাউন্ট বাড়াতে বা কমাতে পারে।

প্রিপেইড মিটারে কখন ইমার্জেন্সি ব্যালেন্স নেওয়া যায়?

যখন আপনার মিটারের ব্যালেন্স শূন্য বা নেগেটিভ থাকবে তখনই শুধু মাত্র প্রিপেইড মিটারে ইমার্জেন্সি ব্যালেন্স নিতে পারবেন।

প্রিপেইড মিটারে কতবার ইমার্জেন্সি ব্যালেন্স নেওয়া যায়?

প্রিপেইড মিটারে একবার টাকা শেষ হলে ইমার্জেন্সি ব্যালেন্স নেওয়া যায়। পরবর্তিতে আবার টাকা রিচার্জ করে ইমার্জেন্সি ব্যালেন্স সমন্নয় করলে আবার ইমার্জেন্সি ব্যালেন্স পূনরায় নেওয়া যাবে।

প্রিপেইড মিটারে ইমার্জেন্সি ব্যালেন্স চেক কোড কত?

প্রিপেইড মিটারে ইমার্জেন্সি ব্যালেন্স চেক কোড ৮১০।

ইনহে প্রিপেইড মিটারের ইমার্জেন্সি ব্যালেন্স কোড কত?

নহে প্রিপেইড মিটারের ইমার্জেন্সি ব্যালেন্স কোড ৮৯৮৯৮৬৮৬।

নেসকো প্রিপেইড মিটারের ইমার্জেন্সি ব্যালেন্স কোড কত?

নেসকো প্রিপেইড মিটারের ইমার্জেন্সি ব্যালেন্স কোড ৯৯৯৯৯।

আশা করিছি প্রিপেইড মিটারে ইমার্জেন্সি ব্যালেন্স কোড সম্পর্কিত নিবন্ধে কিভাবে প্রিপেইড মিটারে ইমার্জেন্সি ব্যালেন্স নিতে হয় সে বিষয়ে বিস্তারিত জেনেছেন। বাংলাদেশের সকল প্রি পেইড মিটারে উপরোক্ত কোড দিয়ে ইমার্জেন্সি ব্যালেন্স নিতে পারবেন। প্রি পেইড সম্পর্কিত সকল লেখা টিপস এন্ড টিকস সেকশনে পাবেন। ধন্যবাদ

4.2/5 - (5 votes)

“প্রিপেইড মিটারের ইমার্জেন্সি ব্যালেন্স কোড | Prepaid Meter Emergency Balance Code 2024”-এ 2-টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

x